ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ আবেদন ও রেজাল্ট

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ আবেদন ও রেজাল্ট সংক্রান্ত যাবতীয় খুঁটিনাটি সকল তথ্য এই নিবন্ধনে প্রকাশ করা হয়েছে। আপনারা যারা যারা ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাচ্ছেন তাদের বলবো সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন এখান থেকে শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত যাবতীয় সকল তথ্য পেয়ে যাবেন। এই নিবন্ধনের ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন, যোগ্যতা, বৃত্তির পরিমাণ ও সময়কাল ও ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবছর বাংলাদেশের অন্যতম ব্যাংক ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং অসহায় গরিব শিক্ষার্থীদের শিক্ষা চালিয়ে যাওয়ার জন্য শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে। ‌ এসএসসি পাশ কৃত শিক্ষার্থীরা ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে পারবে। এছাড়াও এইচএসসি ও অনার্স পর্যায়ে ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে। ‌ এসএসসি পাস কৃত শিক্ষার্থীরা কিভাবে ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করবেন সে পদ্ধতি এখানে দেখুন ‌। এছাড়াও ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে শিক্ষা বৃত্তি সংক্রান্ত নোটিশ পেয়ে যাবেন।

ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩

ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংক দেশের অসহায় গরিব মেধাবী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার সুযোগ জাগ্রত করার জন্য প্রতিবছর শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে। এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশের পর ডাচ বাংলা ব্যাংক তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে এসএসসি শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত নোটিশ প্রকাশ করে। এসএসসি পরীক্ষা পাসকৃত শিক্ষার্থীরা ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

বিগত কয়েক বছর থেকে ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংক এ শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে আসছে। ‌ তবে যারা ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তের আবেদন করতে চাচ্ছেন তাদেরকে অবশ্যই আবেদনের পূর্বে আবেদনের যোগ্যতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। তাই সকল শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন যোগ্যতা সহ বিস্তারিত খুটিনাটি সকল তথ্য এই নিবন্ধনে প্রকাশ করা হয়েছে।

আবেদন শুরুর তারিখ : 

আবেদনের শেষ তারিখ :

প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ :

কাগজপত্রের সত্যতা যাচাই :

প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশ : 

ডাচ-বাংলা ব্যাংকে শিক্ষাবৃত্তি আবেদনের যোগ্যতা

আপনি কি ডাচ বাংলা ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তির আবেদন? তাহলে অবশ্যই আবেদনের পূর্বে ডাচ-বাংলা ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রকাশিত শিক্ষা বৃত্তি যোগ্যতা দেখুন। আপনি যদি ডাচ বাংলা ব্যাংকে শিক্ষাবৃত্তির আবেদন করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই এসএসসি পরীক্ষায় পাস করতে হবে এবং চতুর্থ বিষয় ব্যতীত ফলাফল যোগ করতে হবে। মূলত মেধাবী অসহায় গরীব শিক্ষার্থীদের ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে থাকে।

সে ক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশন এলাকার বা অন্তর্গত স্কুল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি পরীক্ষায় পাশ কৃত শিক্ষার্থীদের সর্বনিম্ন জিপিএ ৫.০০ থাকতে হবে তবেই শিক্ষার্থী ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে পারবে। এছাড়া জেলা শহর এলাকার অন্তর্গত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি পরীক্ষায় পাসিত শিক্ষার্থীদের সর্বনিম্ন জিপিএ ৫.০০ থাকতে হবে। আর যে সকল শিক্ষার্থী গ্রামীণ বা অনগ্রসর অর্থাৎ অনুন্নত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি পরীক্ষা পাস করেছে তাদের সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.৫০ থাকতে হবে তবেই ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে পারবে।

এছাড়া শিক্ষার্থীদের অবশ্যই মেধাবী এবং অসহায় দরিদ্র পরিবারের সন্তান হতে হবে। ডাচ বাংলা ব্যাংক মুক্তিযোদ্ধা কোটা ধারী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সুবিধা প্রদান করছে ‌।

ডাচ বাংলা ব্যাংক বৃত্তি পরিমাণ কত টাকা ?

অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চান ডাচ বাংলা ব্যাংক বৃত্তি পরিমাণ কত টাকা বা কত সময়কাল পর্যন্ত এ বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে। আপনাদেরও প্রথমে বলে রাখি ডাচ বাংলা ব্যাংক অসহায় দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করে থাকে। ‌ এসএসসি পরীক্ষা পাস কৃত শিক্ষার্থীদের ডাচ বাংলা ব্যাংক দুই বছর মেয়াদে বৃত্তি প্রদান করে থাকে। প্রতি মাসে ২৫০০ টাকা প্রদান করে ডাচ-বাংলা ব্যাংক। ‌ শিক্ষার্থীদের বই কেনার জন্য পোশাক পরিচ্ছদের জন্য এ টাকা প্রদান করা হয়ে থাকে।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক এসএসসি শিক্ষাবৃত্তি নোটিশ

আপনি কি ডাচ বাংলা ব্যাংক এসএসসি শিক্ষাবৃত্তি নোটিশ অনুসন্ধান করছেন? তবে বলবা উপযুক্ত ওয়েবসাইটে এসেছেন এখন আমরা নিচে ডাচ বাংলা ব্যাংক ২০২৩ সালের এসএসসি শিক্ষাবৃত্তি নোটিশ পিডিএফ প্রকাশ করছি। ‌ ছবির উপরে ক্লিক করে আপনি ডাচ-বাংলা ব্যাংক এসএসসি শিক্ষাবৃত্তি নোটিশ ডাউনলোড করুন। ‌

ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করার নিয়ম

আপনারা যারা ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে চাচ্ছেন যোগ্যতা রয়েছে তারা অনলাইনের মাধ্যমে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আবেদন করতে পারবেন। তবে কিভাবে ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে হয় বা আবেদন করার নিয়ম সম্পর্কে অনেকে জানেন না মূলত তাদের সুবিধার্থে এখন আমরা ডাচ-বাংলা ব্যাংক আবেদন করার নিয়ম এখানে প্রকাশ করেছে। আশা করি ছোট ছোট ধাপ গুলো অনুসরণ করে খুব সহজে ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে পারবেন।

আপনি যদি ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে চান তাহলে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের অফিসিয়াল app.dutchbanglabank.com/DBBLscholarship ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন আবেদন ফরম পূরণ করুন। আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি স্ক্যান করুন পিতা-মাতার পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি স্ক্যান করুন এবং এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার নম্বর পত্র ও প্রশংসাপত্র স্ক্যান করে আবেদনপত্র জমা দিন। ‌

ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি রেজাল্ট

ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। ‌ ডাচ বাংলা ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে রেজাল্ট পিডিএফ আকারে প্রকাশ করা হয়। ‌ আপনারা যারা এ বছর এসএসসি ও সমাধান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে এইচএসসি বা উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে পড়াশুনার জন্য ডাচবাংলা ব্যাংকের স্কলারশিপের আবেদন করেছিলেন তাদের প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশ করা হয়। ‌ ডাচ বাংলা ব্যাংকের অফিসের ওয়েবসাইট থেকে প্রাথমিক ফলাফলের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে শিক্ষার্থীরা তাদের আবেদন রোল নাম্বার দিয়ে রেজাল্ট সংগ্রহ করতে পারবে।

যারা ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি প্রাথমিক ফলাফলে উত্তীর্ণ হয়েছেন তারা নিকটস্থ ডাচ-বাংলা ব্যাংকের শাখায় গিয়ে আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদান করুন। ‌ অনলাইনে ডাচ বাংলা ব্যাংক স্কলারশিপ রেজাল্ট পেতে চাইলে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের অফিসিয়াল এই app.dutchbanglabank.com/DBBLscholarship ওয়েবসাইটটিতে ভিজিট করুন।

শেষ কথা

প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত যাবতীয় খুঁটিনাটি সকল তথ্য প্রকাশ করেছে। ‌ আপনারা যারা ডাচ বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন করতে চাচ্ছেন তারা অবশ্যই আবেদন করার পূর্বে ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি নোটিশটি ভালোভাবে পড়ে নিবেন। ‌ এছাড়া ডাচ-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি সংক্রান্ত এ আর্টিকেলটি ভালো লাগলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের শেয়ার দিয়ে শেয়ার করতে ভুলবেন না।